• Home
  • Articles
  • Islamic :: Bangla
  • নবীর ছবি, কোরাণ পোড়ানো, বাক্‌স্বাধীনতা ও সাম্প্রদায়ীক সম্প্রীতি

বাংলাদেশী কনে-কে ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেস-এর সংবর্ধনা

ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেস :- "নারী - সিদ্ধান্তে সমান অংশীদার"


ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেসের প্রযোজনায় ১৪ই জানুয়ারী ২০১২ তারিখে যৌতুকের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর জন্য ফারজানা ইয়াসমিন নিপা ও তার বাবা-মায়ের সম্মানে বেসরকারী সংগঠন ‘‘মায়ের আঁচল’’ এক সম্মাননা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। যৌতুকের বিরুদ্ধে আইন থাকলেও এই ভয়ংকর কুপ্রথায় বাংলাদেশে স্বামীপক্ষ বহু নারীকে নির্মমভাবে অপমান, নির্যাতন, প্রহার, আগুনে দগ্ধ এমনকি খুন পর্যন্ত করে।

বরগুণা জেলায় ২০১১ সালের ১১ মাসের (নভেম্বর) ১১ তারিখে বেলা ১১টা ১১ মিনিটে মোঃ খলিলুর রহমান ও সুরাইয়া বেগমের কন্যা ফারজানা ইয়াসমিন নিপা ও প্রাইমারী স্কুলের প্রধান শিক্ষক শওকত হিরণের বিয়ে পড়ানোর পরে পরেই হিরণের ফুফু তহমিনা যৌতুক হিসেবে ফ্রিজ, টিভি ও মটর সাইকেল দাবী করে। তহমিনা নিজেও একজন শিক্ষক। নিপা হিরণকে এ ব্যাপারে জিজ্ঞেস করলে সে যৌতুক নেবার পক্ষে মত দেয়। নিপা তখনি জনসমক্ষে দৃপ্তকন্ঠে হিরণকে তালাক দেবার ঘোষণা করে। এতে বরপক্ষ স্তম্ভিত হয়ে পড়ে এবং মিটমাটের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে জাতি নিপা ও তার বাবা-মাকে অকুন্ঠ সমর্থন জানায়। সারা পৃথিবীতেও এটা ছড়িয়ে পড়ে এবং বিবিসি ‘‘দশ মিনিটের কনে’’ নামে তা প্রচার করে। পরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তদন্তের ভিত্তিতে হিরণ ও তহমিনাকে চাকরি থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। হিরণপক্ষ সংবাদ সম্মেলন ও ফেসবুক-এ নিজেদের সাফাই গেয়েছে কিন্তু তা বেশী লোক বিশ্বাস করেনি।

মিলনায়তনে উপচে পড়া বিশেষ করে নারী ও সংবাদমাধ্যম মুখরিত আনন্দঘন পরিবেশে সভাপতিত্ব করেন "মায়ের আঁচল"-এর নির্বাহী-প্রধান রাশিদা করিম। বক্তব্য রাখেন প্রধান অতিথি খুলনার মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, স্থানীয় গন্যমান্য শিক্ষাবিদ, আইনজীবি, মানবাধিকার ও নারী-অধিকার কর্মীরা। নিপা নিজেও তাঁর বক্তব্যে যৌতুকের বিরুদ্ধে দৃঢ় অঙ্গীকার ব্যক্ত করেন ও সমর্থনের জন্য সবাইকে ধন্যবাদ জানান। তাঁর বাবা প্রবল অশ্রুকাতরতার জন্য তেমন কিছু বলতে পারেন নি। এরপর যৌতুকের বর্বরতার ওপরে স্বরচিত ও স্বসুরারোপিত একটি মর্মান্তিক গান পরিবেশন করেন খুলনা বেতারের সুগায়ক জনাব করিম। সবশেষে নিপা ও তার বাবা-মাকে ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেস ও "মায়ের আঁচল"-এর পক্ষ থেকে ফুলের তোড়া ও পদক উপহার দেয়া হয় ।

সবার মন কেড়েছে মঞ্চে বিশাল ব্যানারে সুদৃঢ় ঘোষণা:- "নারী - সিদ্ধান্তে সমান অংশীদার"।

ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেসের উপদেষ্টা ক্যানাডার টরন্টো-নিবাসী হাসান মাহমুদ এ অনুষ্ঠানের আয়োজনে "মায়ের আঁচল" ও ওয়ার্ল্ড মুসলিম কংগ্রেসের মধ্যে সমন্বয় সাধন করেন ।

Read BBC report on her here.  ::   Read Daily Star report on her here.  :: World Muslim Congress Home

Print